বরিশালে পাঁচ হাজার পরিবারে ঈদ উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক
জেলা প্রতিনিধি, বরিশাল।
প্রকাশিত: সোমবার ২রা মে ২০২২ ১০:২৫ পূর্বাহ্ন
বরিশালে পাঁচ হাজার পরিবারে ঈদ উদযাপন

বরিশাল মহানগরসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলায় প্রায় ৫ হাজার পরিবার সোমবার ঈদুল ফিতর উদযাপন করছে। এজন্য অর্ধশতাধিক মসজিদে ঈদুল ফিতরের জামাতের যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সবগুলো মসজিদে সোমবার সকাল ৯টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।


সোমবার যারা ঈদ পালন করবেন তারা চট্টগ্রামের চন্দনাইশের জাহাগীরিয়া শাহসুফি মমতাজিয়া দরবার শরীফের অনুসারী। পৃথিবীর কোনো প্রান্তে চাঁদ দেখা গেলে তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে তারা রোজা, ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহাসহ যাবতীয় ধর্মীয় আচার পালন করেন। 


বরিশাল নগরীর ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের তাজকাঠীর হাজি বাড়ির জাহাগিরিয়া শাহসুফি মমতাজিয়া জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি আমীর হোসেন জানান, ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ সাগরদী, তাজকাঠীসহ আশপাশের প্রায় ৫০০ পরিবার সোমবার ঈদ পালন করবেন। 



তিনি বলেন, “সোমবার তাদের ওয়ার্ডের যেসব পরিবার ঈদ পালন করবেন তারা চট্টগ্রামের চন্দনাইশের জাহগিরিয়া শাহসুফী মমতাজিয়া দরবার শরীফের অনুসারী।”


আমীর হোসেন বলেন, “বরিশাল নগরীসহ জেলার ৫০টি মসজিদে চন্দনাইশ দরবারের অনুসারীরা ঈদের নামাজ পড়াবেন।”


২৬ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব হরিনাফুলিয়ার চৌধুরীবাড়ি শাহসুফী মমতাজিয়া জামে মসজিদের সভাপতি মমিন উদ্দিন কালু জানান, তাদের ওয়ার্ডেও সোমবার ঈদপালন করবেন প্রায় ১ হাজার পরিবার। নগরীর ২২নম্বর ওয়ার্ড ও দপদপিয়া এলাকারও পাঁচশতাধিক পরিবার সোমবার ঈদের নামাজ পড়ে ঈদ উদযাপন করবেন।


জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলায় চন্দনাইশ দরবার শরীফের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক অনুসারী রয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলার খানপুরা গ্রামের আব্দুর রশীদ শিকদার স্মৃতি জামে মসজিদের সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম। 


তিনি বলেন, “বাবুগঞ্জের খানপুরা, কেদারপুর, মাধবপাশাসহ ৫-৬টি গ্রামের একহাজারের বেশি পরিবারে সোমবার ঈদ উদযাপিত হচ্ছে।”


চট্টগ্রামের চন্দনাইশের জাহগিরিয়া শাহসুফী মমতাজিয়া দরবার শরীফের অনুসারী মমিন উদ্দিন কালু, আমীর হোসেন ও নজরুল ইসলাম সমকালকে বলেন, “জেলার মুলাদী, হিজলা, মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলায় এবং সদর উপজেলার চন্দ্রমোহন, পতাং, লাহারহাট গ্রামের চন্দনাইশ দরবারের প্রায় দুই হাজার অনুসারী রয়েছেন। তারা সোমবার ঈদুল ফিতর উদযাপন করবেন।”