বর্ণাঢ্য আয়োজনে রুয়েটের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক
রিজভী আহমেদ, রাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত: রবিবার ১লা সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৬:৪৮ অপরাহ্ন
বর্ণাঢ্য আয়োজনে রুয়েটের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

বর্ণাঢ্য আয়োজনে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) ১৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও বিশ^বিদ্যালয় দিবস উদযাপিত হয়েছে। রবিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আনুষ্ঠানিক পর্ব শুরু হয়। এরপর বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে দিনব্যাপী কর্মসূচির উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম সেখ।

পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ছাত্রদের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও কবর জিয়ারত শেষে প্রশাসন ভবনের সামনে থেকে সকল শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দের অংশগ্রহণে র‌্যালি বের হয়। পরে র‌্যালিটি ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক ও রুয়েটের প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ শেষে প্রশাসন ভবনের সামনে এসে শেষ হয়। এদিন বৃক্ষরোপণ, প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ, আইডিয়া কনটেস্ট কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের তথ্য সংরক্ষণের জন্য ডিজিটাল ডাটাবেজও উদ্বোধন করা হয়।

 এসময় উপস্থিত ছিলেন রেজিষ্ট্রার অধ্যাপক সেলিম হোসেন, ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক রবিউল আওয়াল, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন পরিচালক মিয়া জগলুল সাদাত, গবেষণা ও সম্প্রসারণ পরিচালক ফারুক হোসেন, আইকিউএসি পরিচালক ড. আবদুল গোফফার খান, রুয়েট শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শামীমুর রহমান প্রমুখ। এদিকে সন্ধায় বিশ^বিদ্যালয় চত্বরে ফায়ার ওয়ার্কস (আতশবাজি) এর মাধ্যমে দিনব্যাপী কর্মসূচির শেষ হয়।

১৯৬৪ সালের ডিসেম্বরে ১২২ জন শিক্ষার্থী নিয়ে রাজশাহী প্রকৌশল মহাবিদ্যালয় নামে এ প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু করে। প্রতিষ্ঠার সময় এটি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে প্রকৌশল অনুষদ হিসেবে ছিল। ১৯৮৬ সালে এটি বাংলাদেশ ইনিস্টিটিউট অব টেকনোলজিতে (বিআইটি) রূপান্তরিত হয়। দেশে ও বিদেশে প্রকৌশল শিক্ষার চাহিদা বৃদ্ধি এবং প্রকৌশল বিদ্যায় উচ্চতর ডিগ্রি ও গবেষণার সুযোগ তৈরি করতে ২০০৩ সালের ১ সেপ্টেম্বর রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় নামে পূর্ণাঙ্গ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে যাত্রা শুরু করে।

ইনিউজ ৭১/টি.টি. রাকিব