সরাইলে দাম বেড়েছে মুরগি ও সবজির, তেলে রেকর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক
মো: তাসলিম উদ্দিন, উপজেলা প্রতিনিধি সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)
প্রকাশিত: বুধবার ১৫ই সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৬:৫৩ অপরাহ্ন
সরাইলে দাম বেড়েছে মুরগি ও সবজির, তেলে রেকর্ড

"দাম কিভাবে কম রাখবো, পোল্ট্রি মুরগি ১৪০ টাকা কেজি, সোয়াবিন তেল এখন ১৫০টাকা, যে গ্যাস সিলিন্ডার ৯০০ টেখা সেই সেলিন্ডার ১০৫০ টেখা। আমড়ার জিনিসপত্র তো আগের দামেই। কম রাহুম কেমনে।" কথাগুলো বলছিলেন সরাইল উপজেলা উচালিয়া পাড়া মোড়ে হোটেল মালিক আরজ আলী। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরাইল উপজেলাসহ হাওড় জুড়ে চাল, ডাল, ভোজ্য তেল, চিনিসহ বেশিরভাগ নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধিতে সাধারণ মানুষ খুব কষ্টে আছেন। গত দেড় বছরে করোনা মহামারি সংকটে সমাজের নিম্নবিত্ত ও নিম্ন-মধ্যবিত্তের মত মধ্যবিত্তের আয় কমেছে। সাথে নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি কষ্টের মাত্রা আরো বাড়িয়ে তুলেছে। তবে এর মধ্যেও রাষ্ট্রীয় বাণিজ্য সংস্থা টিসিবির সীমিত উদ্যোগ পণ্যমূল্য বৃদ্ধি রোধে আশানুরূপ ভূমিকা রাখতে পারছে না।


সরাইলে খোলা সয়াবিন তেলে রেকর্ড, বেড়েছে মুরগি ও সবজির দাম। সয়াবিন তেল দাম বাড়ার খবরে সরাইলে ১৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে খোলা সয়াবিন তেল। বেড়েছে পামওয়েল-কোয়ালিটির দামও। একই সঙ্গে বেড়েছে ব্রয়লার, লেয়ার, ও সোনালী মুরগির দাম। বাজারে এসেছে বেশ কয়েক প্রকার নতুন সবজি। সেগুলো বিক্রি হচ্ছে চড়া দামে। সরাইল ঐহিত্যবাহী বিকাল বাজারে ঘুরে এসব তথ্য জানা যায়।


সরাইল র্ঝণা স্টোরের বিক্রেতা  আজ বলেন,খোলা সয়াবিন তেল, পাম তেল ও কোয়ালিটি তেলের দাম এক সপ্তাহের ব্যবধানে ১০ থেকে ১২ টাকা বেড়েছে। ধারণা করা হচ্ছে সয়াবিন তেলের আরও বাড়তে পারে। বোতলজাত তেল ১৫৩ টাকা লিটার, খোলা সয়াবিন ১৫০ টাকা, কোয়ালিটি ১৪৫ টাকা, পাম তেল ১৩৫ টাকা, সরিষার তেল ১৯০- ২০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।


দেশি মসুর ডাল ১১০ টাকা, ইন্ডিয়ান মসুর ডাল ৮৫ টাকা, মাসকলাই ডাল ১০০ থেকে ১৩০ টাকা, চিনি ৮০ টাকা এবং আটা ৩০ থেকে ৩৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। বাজারের মুরগি বিক্রেতা আরজূ মিয়া বলে,চাহিদা বেশি হলেও আমদানি কম থাকায় সব প্রকার মুরগির দাম বেড়েছে।তিনি জানান, ব্রয়লার মুরগির দাম ১৫টাকা বেড়ে ১৪০ টাকা, সোনালী মুরগি ৫০ টাকা বেড়ে ২৭০ টাকা, দেশি মুরগি ৩৫০ টাকা, লেয়ার মুরগি ৩০ টাকা বেড়ে ২৬০ টাকা বিক্রি করা হচ্ছে।


 ফার্মের মুরগির ডিম ৩২ টাকা, দেশি মুরগির ডিম ৪৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।গরুর মাংস ৫৬০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। আর হাঁসের ডিম হালপ্রতি ৪০ টাকা, 

সবজি বিক্রেতা সাকিব মিয়া  জানান, বাজারে বেশ কয়েক প্রকার নতুন সবজি এসেছে। তাই কিছুটা বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। বেগুন ৬০ টাকা, দেশি করলা ৬০ টাকা, শিম ১০০ টাকা,  টমেটো ১০০ টাকা, ঝিঙ্গা ৩০ টাকা, মুখী কচু ২০ টাকা, পেঁপে ২০টাকা, গাজর ৮০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, লতা ৪০ টাকা, শসা ৪০ টাকা, কাঁচা মরিচ ৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। 


আর লাউ প্রতিটি ৪০ টাকা, লেবু ১০ টাকা হালিতে বিক্রি হচ্ছে।মাছ  বিক্রেতা মো. আনিস মিয়া এ প্রতিনিধিকে বলেন, পাঙাশ মাছ ছাড়া সব প্রকার মাছের দাম কেজিতে ২০ থেকে ৩০ টাকা বেড়েছে।এদিকে, পেঁয়াজ ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, রসুন ৫০ টাকা, আদা ৮০ টাকা, আলু ২০ থেকে ২২ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।