ভূরুঙ্গামারীতে আওয়ামী লীগ ইউপি সভাপতি সহ বহিষ্কার ৫, মামলায় আটক ১

নিজস্ব প্রতিবেদক
শামসুজ্জোহা সুজন
প্রকাশিত: সোমবার ৪ঠা জানুয়ারী ২০২১ ১১:৪৭ পূর্বাহ্ন
ভূরুঙ্গামারীতে আওয়ামী লীগ ইউপি সভাপতি সহ বহিষ্কার ৫, মামলায় আটক ১

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড কাউন্সিল করতে গিয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতির সমর্থকদের হাতে শারীরিক ভাবে লাঞ্ছিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ৪ নেতা। এ ঘটনায় ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতিসহ ৫ জনকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে। এছাড়া ১৩ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ে করা হয়েছে। পুলিশ ১ জনকে আটক করেছে।


রোববার বিকেলে উপজেলার শিলখুড়ি ইউনিয়নের ধলডাঙ্গা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানাগেছে, শিলখুড়ি ইউনিয়নের উত্তর তিলাই মাদরাসা মাঠে ৯ নম্বর ওয়ার্ড (উত্তর তিলাই) কাউন্সিল সম্পন্ন করতে যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক অধ্যক্ষ মুকুল চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক সরকার রকীব আহমেদ,


আওয়ামী লীগ নেতা ও প্রধান শিক্ষক সাইফুর রহমান এবং প্রভাষক বদরুল আলম। তাঁরা শিলখুড়ি ইউনিয়নের ধলডাঙ্গা বাজারের কাছাকাছি পৌঁছলে ওই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ সভাপতি আলতাফ হোসেনের নেতৃত্বে তার সমর্থকরা কাউন্সিল সম্পন্ন করতে যাওয়া ব্যক্তিদের বহনকারী গাড়ি আটকিয়ে তাদেরকে শারীরিক ভাবে লাঞ্ছিত করে।


পরে স্থানীয় এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে ভূরুঙ্গামারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। এঘটনার প্রেক্ষিতে রোববার রাতেই আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগ এক জরুরী সভা আহ্বান করে শিলখূড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আলতাফ হোসেন, সহ-সভাপতি আবুবকর সিদ্দিক, আব্দুল কাদের তালুকদার, নুরুল ইসলাম ও ছাত্রলীগের ইউনিয়ন সভাপতি ওমর ফারুককে সাময়িক বহিস্কার করে।


এ ঘটনায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতিসহ ১৩ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছেন লাঞ্ছিতের স্বীকার উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সরকার রকীব আহমেদ। উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শাহজাহান সিরাজ জানান, আলতাফ হোসেনের নেতৃত্বে গুটি কয়েক নেতা-কর্মী দীর্ঘদিন থেকে বিভিন্ন রকমের অপকর্ম করে আসছে।


কাউন্সিলে তাদের পদ না থাকার ভয়ে এই ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে। সংগঠনের পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ওসি মুহা: আতিয়ার রহমান মামলা দায়ের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান এ ঘটনায় ১ জনকে আটক করা হয়েছে।