মালিকরা মার্কেটে ঢুকতে দিচ্ছেন না মাস্ক ছাড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক, জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত: মঙ্গলবার ২রা জুন ২০২০ ০২:০৬ পূর্বাহ্ন
মালিকরা মার্কেটে ঢুকতে দিচ্ছেন না মাস্ক ছাড়া

মহামারি করোনাভাইরাসের চলমান পরিস্থিতিতে  টানা ৬৬ দিন বন্ধ থাকার পর ৩১ মে থেকে খুলতে শুরু করেছে দোকানপাট। তবে স্বাস্থ্যবিধির বিষয়ে কঠোর অবস্থানে রয়েছেন দোকানের মালিকরা। এ জন্য ক্রেতাদের মাস্ক ছাড়া দেখলেই মার্কেটে ঢুকতে বাঁধা দিচ্ছেন তারা।
সোমবার রাজধানীর গুলিস্তান, নিউমার্কেট, এলিফ্যান্ট রোড, সীমান্ত স্কয়ার, বসুন্ধরা শপিংমল ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। 

এ সময় মার্কেটগুলোর অধিকাংশ দোকান বন্ধ থাকলেও কিছু দোকানে সবাইকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নের কাজে ব্যস্ত দেখা যায়।

ব্যবসায়ীরা বলেন, প্রচুর সংকটের মধ্যে আমাদের দিন যাচ্ছে। এ মুহূর্তে সরকার যে ঘোষণা দিয়েছে তা কিছুটা হলেও আমাদের সংকট কাটাতে সহায়তা করবে। তাই এই বন্ধের মধ্যেও আমরা দোকান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করছি; যাতে নির্ধারিত সময়ে সরকারের বিধিনিষেধ মেনে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান চালু করতে পারি। তাই ব্যবসা চালু রাখার স্বার্থে ও নিজেদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই নিয়ম মানতে অনুরোধ করা হচ্ছে ক্রেতাদের। 

এদিকে এখনো বন্ধ নিউমার্কেট, গাউছিয়া, চাঁদনী চক, চন্দ্রিমা মার্কেটের ভেতরের অংশ। আগামী বুধবার থেকে নিয়ম মেনে খোলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানান নিউমার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি দেওয়ান আমিনুল ইসলাম শাহীন।

বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্সের দোকান মালিক সমিতির সভাপতি এম এ হান্নান আজাদ বলেন, ধীরে ধীরে খোলার প্রস্তুতি চলছে। দ্রুতই খোলা হবে এই মেগা শপিং কমপ্লেক্স। 

এদিকে বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, সরকার শপিং মল, মার্কেট খোলা রাখার অনুমতি দিলেও খুব বেশি প্রয়োজন না হলে কেনাকাটা করতে যাওয়া যাবে না। আর যদি যেতেই হয়, তাহলে করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিতে হবে। অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। যে কোনো ব্যাক্তি বস্তুর স্পর্শ থেকে নিজেকে রক্ষা করতে হবে। দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। তারা বলেন, মার্কেটে জনসমাগমের ঘনত্ব বেশি হওয়ায় করোনা সংক্রমণের ঝুঁকিও অনেক বেশি। তাই অতি প্রয়োজন না হলে কারোই কেনাকাটা করতে যাওয়া ঠিক হবে না।